রসগোল্লা

রসগোল্লা

রেসিপি ছবিঃ আফরুজা শিল্পী

ছানা তৈরির উপকরণঃ টাটকা ভাল দুধ ১ লিটার
সিরকা বা লেবুর রস ৪ টেবিল চামচ

ছানা তৈরি করার নিয়মঃ সিরকার সঙ্গে সমান পরিমাণ পানি মিশিয়ে রেখে দিতে হবে। দুধ চুলায় দিয়ে জ্বালাতে থাকুন, ফুটে উঠা মাত্রই সিরকা দিয়ে চুলা থেকে নামিয়ে রাখুন। দুধের ছানা ও পানি আলাদা হলে দুধ একটি কাপড় বা ছাঁকনিতে ঢেলে নিন। ট্যাপের নিচে পানি দিয়ে ভালো করে ধুয়ে নিন। এতে ছানা থেকে সিরকা বা লেবুর টক ভাব চলে যাবে । এবার পুটলিকে হাত দিয়ে চেপে চেপে পানি যতটুকু বের করা যায় করতে হবে। তারপর ছানার পানি ঝরার জন্য পাতলা কাপড়ে করে এক ঘণ্টা ঝুলিয়ে রাখুন। এরপর ছানার পানি শুকানোর জন্য একটা প্লেটে করে বাতাসের নিচে ছড়িয়ে রাখুন কয়েক ঘণ্টার জন্য। বেশি শুকিয়ে ফেলবেন না , নরম থাকবে যেন ছানা দিয়ে বল বানানো যায় । তারপর ছানা রসগোল্লা তৈরীর জন্য রেডি।

রসগোল্লার সিরা তৈরীঃ চুলায় একটি ছড়ানো পাত্রে ৬ কাপ পানি, দেড় কাপ চিনি ও ২ টা সাদা এলাচ দিয়ে জ্বালিয়ে চিনি আর পানি ভাল ভাবে মিশে গেলেই চুলার আঁচ কমিয়ে রেখে দিতে হবে ।

রসগোল্লা তৈরীর উপকরণঃ ছানা ১ কাপ (১ লিটার ভালো মানের দুধ থেকে ১ কাপ ছানা হবে)
ময়দা ১ চা চামচ
চিনি ২ চা চামচ
এলাচ গুঁড়া আধা চা চামচ
গোলাপ জল ২ চা চামচ

রসগোল্লা তৈরির নিয়মঃ প্রথমে ছানার সাথে ময়দা, চিনি ও এলাচ গুড়া দিয়ে হাতের তালু দিয়ে প্লেটের উপর ছানাটা ঘষে ঘষে ছেনে নিতে হবে ১০ থেকে ১৫ মিনিট। এতো ভালো ভাবে ছেনে নিতে হবে যেন ছানার মধ্যে কোনো দলা দলা না থাকে এবং বল বানালে খুব মসৃন বল হয়। এরপর মথে নেওয়া ছানা দিয়ে ছোট ছোট বল বানাতে হবে। বল মসৃন না হয়ে ফেটে গেলে আবার ভাল করে মথে নিয়ে তারপর বল বানাতে হবে। সবগুলো বল বানানো হয়ে গেলে একসাথে সিরাতে ছেড়ে দেবেন এবং ঢাকনা দিয়ে জ্বাল মাঝারি আঁচে রাখবেন। বলক আসলে জ্বাল আরো কমিয়ে দেবেন। মিষ্টি নাড়াচড়া করা যাবে না। ১০ মিনিট পর আবার ১ কাপ পানি দিবেন। এভাবে আরো ১০ মিনিট জ্বাল দিতে হবে। কিন্তু খেয়াল রাখতে হবে সিরা যাতে বেশি ঘন না হয়। রসগোল্লা হয়ে গেছে কিনা তা চেক করার জন্য একটা বাটিতে নরমাল পানিতে একটা রসগোল্লা ছেড়ে দিতে হবে। যদি ডুবে যায় তবে বুঝবেন হয়ে গেছে। না ডুবলে আরো ৫ মিনিট অল্প আঁচে সিরায় জ্বালাতে হবে।

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *